দুর্গা কালী অভিন্নতা – তমাল দাশগুপ্ত

দুর্গা কালী অভিন্নতা।

★ দুর্গামন্ত্র প্রকৃতপক্ষে মা কালীর উপাসনা, দুর্গাস্তব করার সময় কালীনাম উচ্চারিত হয়: জয়ন্তী মঙ্গলাকালী ভদ্রকালী কপালিনী।

★ দুর্গাপুজো প্রকৃতপক্ষে ভদ্রকালীর উপাসনা, যিনি শাস্ত্র-পুরাণ অনুযায়ী সিংহবাহিনী এবং মহিষাসুর বিনাশিনী, যদিও ভদ্রকালীর ভুজের সংখ্যা ভিন্ন, তিনি দশভুজা নন। কিন্তু দুর্গা ভদ্রকালীর অভিন্নতা সম্পর্কে শাস্ত্রীয় ঐক্যমত্য আছে।

★ দুর্গাপুজোর সন্ধিপুজোয় যিনি বলি গ্রহণ করেন তিনি চামুণ্ডাকালী। শ্রীশ্রীচণ্ডী অনুযায়ী চণ্ড মুণ্ড অসুর বধ করে চামুণ্ডা নাম ধারণ করেন মা কালী স্বয়ং। অতএব সন্ধিপুজোর বলি মা কালীকেই উৎসর্গ করা হয়।

★ অষ্টাদশ শতকে মানিক গাঙ্গুলীর ধর্মমঙ্গলে বাংলায় বিভিন্ন স্থানেশ্বরী মাতৃকার নাম পাওয়া যায়। এখানে জয়দুর্গা উল্লিখিত। জয়দুর্গা প্রকৃতপক্ষে মা কালীর সমার্থক, শশিভূষণ দাশগুপ্ত এই মত প্রকাশ করেন।

★ শাক্ত মাত্রেই তন্ত্রের কালীকুল অনুসরণ করেন। এই সাধনপথে মা কালী সর্বময়ী। দেবী ভাগবত পুরাণ যেমন বলে, সর্বকারণকারণম, শ্রীশ্রীচণ্ডীতে দেবী বলেন, একৈবাহং জগত্যত্র দ্বিতীয়া কা মমাপরা, অর্থাৎ তিনি ভিন্ন জগতে আর কিছু নেই। তিনি ভিন্ন অপর কিছু নেই, কারণ তিনি জগদকারণ, তিনি জগদ্ধাত্রী, তিনি জগদবিলয়। সর্বোপরি মা কালী ভিন্ন কলিযুগে অপর উপাস্য নেই, কলৌ কালী কলৌ কালী নান্যদেবো কলি যুগে।

দুর্গা কালীর অভিন্নতা সিদ্ধ কারণ মা কালী হলেন বঙ্গেশ্বরী: কালিকা বঙ্গদেশে চ। মা কালী যুগেশ্বরী, কারণ কলিযুগে কালীই একমাত্র উপাস্য। তাই বাঙালির ও বাংলার শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গাপুজোতে মা কালীরই বিভূতি নিহিত।

© তমাল দাশগুপ্ত Tamal Dasgupta

ছবিটি ইন্টারনেট থেকে নেওয়া।

জয় মা দুর্গা, জয় মা কালী, জয় তন্ত্র, জয় বাঙালি।

জয় জয় মা।

তমাল দাশগুপ্ত ফেসবুক পেজ, নয় সেপ্টেম্বর দুহাজার বাইশ

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s